শিরোনাম
২০২৩-২৪ অর্থবছরের সম্পূরক বাজেট পাস দিল্লিতে শেখ হাসিনার সঙ্গে সোনিয়া গান্ধীর সাক্ষাৎ বিআরটিসির ঈদ স্পেশাল সার্ভিস শুরু বৃহস্পতিবার সৌদি পৌঁছেছেন ৭৬ হাজার ৩২৫ হজযাত্রী প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে সব দলকে আমন্ত্রণ জানাবে আওয়ামী লীগ রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত ৩ অল্পের জন্য রক্ষা পেলেন ট্রেনের ৩০০ যাত্রী বেনাপোলে দুর্বৃত্তের কোপে গুরুতর আহত রাজস্ব কর্মকর্তা বেনজীরের রিসোর্ট নিয়ন্ত্রণে নিলো প্রশাসন নরেন্দ্র মোদিকে নতুন সরকার গঠনের অনুমতি দিলেন রাষ্ট্রপতি নয়াদিল্লি পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী গাজীপুরে বাস-অটোরিকশা মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ২ দৈনিক আমার সংবাদের এক যুগপূর্তি অনুষ্ঠিত ৫১২ আসনের চূড়ান্ত ফল ঘোষণা এশিয়ায় ইন্টারনেট ব্যবহারে পিছিয়ে বাংলাদেশের নারীরা
বুধবার, ১২ জুন ২০২৪, ১১:৫১ অপরাহ্ন

বাংলাদেশের মানুষের সবচেয়ে বেশি রাগ আমার ওপর: মিথিলা

বিনোদন ডেস্ক / ১৭৬ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২২ জুন, ২০২১

অভিনেত্রী রাফিয়াত রশিদ মিথিলা জানিয়েছেন, বাংলাদেশের মানুষের সবচেয়ে বেশি রাগ তাঁর ওপর। কলকাতার আনন্দবাজার পত্রিকাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এমন মন্তব্য করেছেন এই অভিনেত্রী।

মিথিলা বলেছেন, ‘আমাকে সৃজিতকে নিয়ে বা আমার বিয়ে নিয়ে আজ নয়, ভারত আর বাংলাদেশ দুদিকেই নেটমাধ্যমে অজস্র কটাক্ষের শিকার হচ্ছি। তবে সাম্প্রতিক কালে অরুচিকর কথা বেড়েছে। আমাকে ‘অসভ্য’ বলে মানুষ নিজে যে অসভ্যতার পরিচয় দিচ্ছে, সেটা আগামী পৃথিবীর জন্য একেবারেই স্বাস্থ্যকর নয়।’

এই অভিনেত্রী আরও বলেছেন, ‘বাংলাদেশে তো মানুষের সবচেয়ে বেশি রাগ আমার ওপর। মানুষ প্রশ্ন করছেন মেয়ে হয়ে কেন আমি বিবাহ বিচ্ছেদ করলাম? মেয়েদের নাকি এসব করতে নেই। তাহসানের ওপর কিন্তু মানুষের রাগ নেই। রাগ যত আমার ওপর। আমি কেন বিয়ে করলাম? আর সৃজিত তো ইসলাম ধর্মীও নয়। আমি বাংলাদেশের সংস্কৃতিকে কলুষিত করেছি। আমি নাকি ‘চরিত্রহীন মা’।এই ‘অসভ্য’ মা ‘অসভ্য’ জাতির জন্ম দেবে। এ বার কিন্তু সময় এসেছে আমরা সবাই একসাথে মিলে, অনলাইন তথা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এই হয়রানি বন্ধ করার উদ্যোগ নিই। হয়রানির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ হোক সমস্বরে।’

ওই সাক্ষাৎকারে সাবেক স্বামী তাহসান প্রসঙ্গে অভিনেত্রীর ভাষ্য, ‘তাহসান আমার প্রাক্তন স্বামী। আমরা আজও বন্ধু। আমাদের রোজ কথা হয়। মানুষকে বুঝতে হবে আমরা দুজনে এক বাচ্চার বাবা-মা। আমাদের সম্পর্কটা এখন বন্ধুর মতো। আর এই সম্পর্ক আয়রার জন্য খুব জরুরি।’

আর স্বামী সৃজিত মুখার্জি প্রসঙ্গে মিথিলা জানিয়েছেন, ‘বিয়ের পরে আমি আর সৃজিত ৭ থেকে ৮ মাস একসঙ্গে থেকেছি।’ সীমান্ত খুললে জুলাইয়ে কলকাতায় যাওয়ার চেষ্টা করবেন তিনি।

মিথিলা কলকাতায় অভিনয় প্রসঙ্গে পরিষ্কার করে জানিয়েছেন, ‘কয়েকটা ছবিতে কাজ করার কথাও হয়েছিল। কিন্তু লকডাউন শুরু হলো, সব কাজ বন্ধ। আর সৃজিত বউকে কোনোদিন ওর ছবিতে নেবে না। সৃজিতকে চিনি আমি।’

রাফিয়াথ রশিদ মিথিলা অভিনয়ের বাইরে বর্তমানে ব্র্যাক ইন্টারন্যাশনালের আর্লি চাইল্ডহুড ডেভেলপমেন্টের প্রধান হিসেবে কর্মরত। ব্যক্তিজীবনে মিথিলা এক কন্যাসন্তানের জননী। ২০১৯ সালের ৬ ডিসেম্বর কলকাতার জনপ্রিয় পরিচালক সৃজিত মুখার্জিকে বিয়ে করেন মিথিলা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ