শিরোনাম
দেশে ৩০ শতাংশ প্রসব ঘটে অদক্ষ দাইয়ের হাতে রাইসির মৃত্যু: বাংলাদেশে একদিনের রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা ভারতে নিখোঁজ এমপি আনারের বিষয়ে যা জানালেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্র মিশনে রাতে মাঠে নামছে বাংলাদেশ ইরানের পরবর্তী সর্বোচ্চ নেতা হওয়ার দৌড়ে ছিলেন রাইসি ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি’র মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক বিশ্ব মেডিটেশন দিবস আজ কক্সবাজারে আরসার ৪ সদস্য গ্রেপ্তার ‘মেট্রোরেলে ভ্যাট পুনর্বিবেচনার আশ্বাস দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী’: কাদের দুই লক্ষ আনসার-ভিডিপি সদস্য মোতায়েন মধ্যরাত থেকে মাছ আহরণ বন্ধ ৬৫ দিনের জন্য চলতি মাসের ১৭ দিনে দেশে এলো ১৩৬ কোটি ডলার স্বর্ণের ভ‌রি ১ লাখ ১৯ হাজার টাকা ছাড়াল পায়রা বন্দরের সাথে সড়ক ও রেলের সংযোগ বাড়ানোর সুপারিশ পাকিস্তানে গাড়ি খাদে পড়ে নিহত ১৪
মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ১১:২০ অপরাহ্ন

মিয়ানমারের ২৭ সেনা বিদ্রোহীদের হাতে নিহত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক / ১৭৩ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : শনিবার, ১২ জুন, ২০২১

মিয়ানমারের চিন রাজ্যের বিদ্রোহী গোষ্ঠী দাবি করেছে, তাদের অতর্কিত আক্রমণে মিয়ানমারের ২৭ সেনা নিহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার থান্টল্যাং এবং হাকহা শহর সংলগ্ন এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। মিয়ানমারের নিহত ২৭ সেনার মধ্যে একজন ক্যাপ্টেন র‌্যাঙ্কের কর্মকর্তা রয়েছে বলেও বিদ্রোহী গোষ্ঠীর পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে। তবে এ বিষয়ে মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

স্থানীয় গণমাধ্যম ‘মিয়ানমারের নাও’ চিনল্যান্ড ডিফেন্স ফোর্সের (সিডিএফ) এর একজন মুখপাত্রের বরাতে জানিয়েছে, মিয়ানমারের থান্টল্যাংয়ের বাইরে খুয়ালহিরিং পর্বতের নিকট জান্তা বাহিনীর সঙ্গে তাদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

মিয়ানমারের সেনারা মোটরসাইকেলে করে এসেছিল উল্লেখ করে বিদ্রোহীদের ওই মুখপাত্র বলেন, আমরা অতর্কিতে তাদের ওপর আক্রমণের সুযোগ নিয়েছিলাম।

সিডিএফের আরেক সদস্য জানান, বুধবার ওই এলাকায় তারা সেনাবাহিনীর ড্রোন দেখেছিলাম। ওই ড্রোনের মাধ্যমে জান্তা বাহিনী তাদের গতিবিধি নজরদারি করছিল। কিন্তু ওইদিন তারা আক্রমণ করেননি। কারণ, সেনাবাহিনী আবাসিক এলাকার কাছাকাছি ছিল।

এরপর বৃহস্পতিবার সুযোগ বুঝে তারা গাংগাও হাকহা মহাসড়কে ৫০ সেনার ওপর আক্রমণ চালান। এতে জান্তা বাহিনীর কমপক্ষে ১০ সেনা সদস্য নিহত হয় এবং বাকি সৈন্যদের ওই এলাকা থেকে প্রত্যাহার করা হয়। সংঘের্ষের সময় মিয়ানমারের সেনাবাহিনী রকেট চালিত গ্রেনেড এবং মেশিনগান ব্যবহার করেছিল। কিন্তু বিদ্রোহী গোষ্ঠীর কোনো ক্ষয়-ক্ষতি হয়নি বলেও তাদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

গত ১ ফেব্রুয়ারি ক্ষমতা দখল করে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে রাজপথে জোরালো প্রতিবাদ গড়ে উঠলে বল প্রয়োগ করে সেনা সরকার। দেশটিতে এখন পর্যন্ত প্রায় সাড়ে আট শতাধিক বিক্ষোভকারীর মৃত্যু হয়েছে। রাজপথে বিক্ষোভ কিছুটা কমলেও দেশটির একাধিক বিদ্রোহী গোষ্ঠী সেনা সরকারের বিরুদ্ধে সশস্ত্র প্রতিরোধের প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে খবর বেরিয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ