শিরোনাম
দেশে ৩০ শতাংশ প্রসব ঘটে অদক্ষ দাইয়ের হাতে রাইসির মৃত্যু: বাংলাদেশে একদিনের রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা ভারতে নিখোঁজ এমপি আনারের বিষয়ে যা জানালেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্র মিশনে রাতে মাঠে নামছে বাংলাদেশ ইরানের পরবর্তী সর্বোচ্চ নেতা হওয়ার দৌড়ে ছিলেন রাইসি ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি’র মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক বিশ্ব মেডিটেশন দিবস আজ কক্সবাজারে আরসার ৪ সদস্য গ্রেপ্তার ‘মেট্রোরেলে ভ্যাট পুনর্বিবেচনার আশ্বাস দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী’: কাদের দুই লক্ষ আনসার-ভিডিপি সদস্য মোতায়েন মধ্যরাত থেকে মাছ আহরণ বন্ধ ৬৫ দিনের জন্য চলতি মাসের ১৭ দিনে দেশে এলো ১৩৬ কোটি ডলার স্বর্ণের ভ‌রি ১ লাখ ১৯ হাজার টাকা ছাড়াল পায়রা বন্দরের সাথে সড়ক ও রেলের সংযোগ বাড়ানোর সুপারিশ পাকিস্তানে গাড়ি খাদে পড়ে নিহত ১৪
মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ১১:০৬ অপরাহ্ন

‘ভালো বন্ধু’ হারানোর ঝুঁকিতে যুক্তরাষ্ট্র: এরদোয়ান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক / ১৯৪ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : বুধবার, ২ জুন, ২০২১
তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান ।

যুক্তরাষ্ট্র যদি তুরস্ককে কোণঠাসা করার চেষ্টা করে, তবে ওয়াশিংটন তার অত্যন্ত ভালো এক বন্ধুকে হারানোর ঝুঁকিতে পড়বে। তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান গতকাল মঙ্গলবার এই বলে যুক্তরাষ্ট্রকে সতর্ক করেছেন।

বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সঙ্গে সাক্ষাতের মাত্র দুই সপ্তাহ আগে এরদোয়ানের কাছ থেকে এমন সতর্কীকরণ মন্তব্য এল। ১৪ জুন ব্রাসেলসে সামরিক জোট ন্যাটোর সম্মেলনের ফাঁকে বাইডেন ও এরদোয়ান বৈঠকে মিলিত হবেন। এটি হবে এ দুই নেতার মধ্যে প্রথম বৈঠক।

ন্যাটোর দুই সদস্য যুক্তরাষ্ট্র ও তুরস্কের মধ্যে সম্পর্কে একধরনের উত্তেজনা বিরাজ করছে। বাইডেন ক্ষমতায় আসার পর দুই দেশের মধ্যকার সম্পর্কে আরও অবনতি হয়। বিশেষ করে তুরস্কের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে বাইডেন সরব হওয়ায় তার প্রভাব সম্পর্কে পড়েছে।

বাইডেন ২০ জানুয়ারি প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব নিয়েই বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিশ্বনেতার সঙ্গে ফোনে কথা বলেন। কিন্তু তিনি এরদোয়ানের সঙ্গে ফোনে কথা বলতে প্রায় তিন মাস সময় নেন।

সম্প্রতি গাজায় ইসরায়েলের নৃশংস হামলার ইস্যুতে বাইডেনকে আক্রমণ করেন এরদোয়ান। ইসরায়েলকে সমর্থন দিয়ে বাইডেন তাঁর হাত রক্তাক্ত করেছেন বলে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট মন্তব্য করেন। বাইডেনের উদ্দেশে এরদোয়ান বলেন, ‘আপনি আপনার রক্তাক্ত হাত দিয়ে ইতিহাস লিখছেন।’

সে সময় বাইডেনের উদ্দেশে এরদোয়ান আরও বলেন, ‘এ কথা বলতে আপনি আমাদের বাধ্য করেছেন। কারণ, আমরা এ নিয়ে আর চুপ থাকতে পারি না।’

মার্কিন প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব নেওয়ার পর এরদোয়ানের কাছ থেকেই সবচেয়ে কড়া ভাষায় আক্রমণের শিকার হন বাইডেন।

গতকাল এরদোয়ান তুরস্কের রাষ্ট্রীয় সম্প্রচারমাধ্যম টিআরটিতে একটি সাক্ষাৎকার দেন। তাঁর কাছে আঙ্কারা-ওয়াশিংটন সম্পর্ক প্রসঙ্গে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, যারা তুরস্ক প্রজাতন্ত্রকে কোণঠাসা করছে, তারা অত্যন্ত ভালো এক বন্ধু হারাবে।

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে তুরস্কের সম্পর্কের উত্তেজনা সৃষ্টির একাধিক কারণ সাক্ষাৎকারে উল্লেখ করেন এরদোয়ান। তার মধ্যে অন্যতম হলো আর্মেনিয়ান গণহত্যাকে যুক্তরাষ্ট্রের স্বীকৃতি প্রদান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ